বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এক মরদেহসহ লিবিয়া থেকে ফিরলেন ১৫৩ বাংলাদেশি



ডেস্ক: লিবিয়া থেকে ফিরেছেন ১৫৩ বাংলাদেশি। সঙ্গে এসেছে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক ব্যক্তির লাশও। তাদের বহনকারী চার্টার্ড ফ্লাইটটি ৮ই সেপ্টেম্বর বেনিনা এয়ারপোর্ট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। ত্রিপলির বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দূতাবাস জানিয়েছে, যুদ্ধবিধ্বস্ত লিবিয়ায় থাকা আরও কয়েকশ’ বাংলাদেশি স্বেচ্ছায় ফিরতে রাজি হয়েছেন। দুটি চার্টার্ড ফ্লাইটে দ্রুত তাদের ফেরানোর প্রস্তুতি চলছে। এ নিয়ে দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে প্রচারিত বার্তাটি ছিল এমন ‘আলহামদুলিল্লাহ্।’ বাংলাদেশ সরকারের তত্ত্বাবধানে দূতাবাসের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা এবং বেনগাজী প্রবাসী ভাইদের সহযোগিতা ও বিশেষত: আইওএম এর সক্রিয় সহায়তায় একটি চার্টার্ড ফ্লাইটে বেনিনা বিমানবন্দর হতে ৮ই সেপ্টেম্বর মোট ১৫৩ জন বাংলাদেশি নাগরিককে দেশে প্রেরণ করা সম্ভব হয়েছে। একই ফ্লাইটে আজদাবিয়াতে সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরণকারী বাংলাদেশি নাগরিক মরহুম মোহাম্মদ নুরুল আমিনের মৃতদেহও দেশে প্রেরণ করা হয়েছে।
সকল প্রয়োজনীয় কার্যাদি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের পর ফ্লাইটটি যথাসময়ে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করার জন্য বেনগাজী প্রবাসীগণ ও বেনিনা বিমানবন্দরসহ সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষ এবং আইওএম-এর প্রতি দূতাবাসের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

উল্লেখ্য, স্বেচ্ছায় দেশে গমনের জন্য ইতিমধ্যে দূতাবাসে নিবন্ধনকৃত এবং আইওএম এর সঙ্গে সাক্ষাৎকার ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়া প্রবাসীদেরকে যথাসম্ভব সত্ত্বর ত্রিপলীর মেতিগা বিমানবন্দর হতে আরো দুইটি চার্টার্ড ফ্লাইটে দেশে পাঠানো সম্ভব হবে বলে আশা করা যাচ্ছে এবং সে মোতাবেক দূতবাসের সার্বিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।