বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের গৌরবের এক বছর পূর্তি : শাহিন আহমদ

12400610_812260792230586_4248949399332599293_n২০১৫ সালের ১৯ জুলাই সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ ও স্মরণীয় একটি দিন। গত বছরের এই দিনে (১৯ জুলাই) নির্বাচিত করা হয় সৃজনশীল, মেধাবী, নতুন নেতৃত্ব। যে নেতৃত্বের অপেক্ষায় ছিল সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের প্রত্যেকটা কর্মী।
২০১৫ সালের ৪ঠা জুলাই সম্মেলনের মাধ্যমে একই বছরের ১৯ জুলাই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আব্দুল বাছিত রুম্মান কে সভাপতি ও আব্দুল আলীম তুষার কে সাধারণ সম্পাদক করে ৪ সদস্যের সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।
তার পর থেকে সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম তুষারের নেতৃত্বে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর কেন্দ্র থেকে ঘোষিত সব ধরনের কাযর্ক্রম, মিছিল-মিটিং, হরতাল বিরোধী আন্দোলন, রাজাকারের ফাঁসির দাবী, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রাজপথে বিভিন্ন আন্দোলন করে আসছে।
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠাকালের পর থেকে দেশের জন্য আন্দোলন, সংগ্রামের সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে।তারই ধারাবাহিকতায় এবং বঙ্গ কণ্যা দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার রুপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ কে বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে নেত্রীর পাশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ভ্যানগার্ড হিসাবে কাজ করছে আসছে। আর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সেরা শক্তিশালী ইউনিট গুলোর মধ্য সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ একটি। মহানগর সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান কে সভাপতি নির্বাচিত করার আগে থেকেই আমি খুব কাছ থেকে তাঁকে দেখে আসছি। তিনি ছিলেন ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত কর্মী। সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পূর্বে তিনি যখন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের উপ প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন তখনও দেখেছিলাম তাঁর নেতৃত্বের দুরদর্শিতা, সংগঠন ও সংগঠনের কর্মীদের প্রতি ভালবাসা।
একজন নেতার আদর্শিক এবং নেতৃত্বের যে গুণাবলী থাকা প্রয়োজন তা দেখেছিলাম আব্দুল বাছিত রুম্মান ভাইয়ের মধ্যে। আর সেই সেই সৃজনশীল নেতৃত্বের বিকাশ ঘটে ২০১৫ ৪ঠা জুলাই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে।
সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই বঙ্গঁবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারন করে মুক্তিযাদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে শিক্ষা- শান্তি – প্রগতির পতাকাবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সিলেট মহানগরকে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের এই ইউনিটটি আরো শক্তিশালী হয়। যখন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে ঢাকা ভার্সিটির মেধাবী ছাত্র, সিলেটের সন্তান এস.এম. জাকির হোসাইন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।
বাংলাদেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সেনা গোয়েন্দাদের দেওয়া তথ্য ছেপে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানহানির অভিযোগে ইংরেজি পত্রিকা দৈনিক ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে ১০০কোটি টাকার মানহানির মামলা করেন সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান।
দলের প্রত্যেকটা প্রোগ্রামে শত শত কর্মী নিয়ে রাজপথে মিছিল- মিটিং, হরতাল বিরোধী আন্দোলন, রাজাকার, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস বিরোধী আন্দোলন এবং দলীয় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণই বলে দেয় এই এক বছরে কতটুকু সফলতার ধার প্রান্তে পৌছেছে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ। যা একমাত্র সম্ভব হয়েছে আব্দুল বাছিত রুম্মান ও আব্দুল আলীম তুষারের নেতৃত্বে।
তাদের মেধা, শ্রম, দক্ষতা ও সততা দিয়ে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ কে শক্তিশালী, সুসংগঠিত এবং ঐক্যবদ্ধ করার জন্য রাত-দিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।
আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে দেশরতœ শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হিসেবে যে সংগঠন পাশে আছে সেই সংগঠনের একজন কর্মী হয়ে গর্ববোধ করি।

—শাহিন আহমদ
শুভকামনা রইল দেশরতœ শেখ হাসিনার জন্য।
শুভকামনা রইল বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সিলেট মহানগরের জন্য।

“আজীবন বঙ্গঁবন্ধুর আদশ নিয়ে রাজনীতি করতে চাই”
জয় বাংলা
জয় বঙ্গঁবন্ধু

সংবাদ শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

BengalTimesNews.com