বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে ২৪ অক্টোবর



স্পোর্টস ডেস্ক:: সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল যে শ্রীলঙ্কা সফর করবে সেটা নিশ্চিত হয়েছে আগেই। তবে দ্বীপদেশটির উদ্দেশ্যে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমরা ঠিক কতো তারিখে দেশ ছাড়বেন তা জানা যায়নি এতোদিন। বুধবার (১২ আগস্ট) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট অপারেশনস কমিটি ও হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের বৈঠক শেষে সম্ভাব্য তারিখ জানা গেল।

সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বেন ক্রিকেটাররা। ২৪ অক্টোবর থেকে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। করোনা মহামারির পর এটই হবে বাংলাদেশের প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ।

বুধবার (১২ আগস্ট) গণমাধ্যমকে এমন খবর জানিয়েছেন বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান। তিনি এটাও জানিয়েছেন, জাতীয় দলের সঙ্গে একই দিনে শ্রীলঙ্কায় যাবে বিসিবির হাই পারফরম্যান্স ইউনিটও (এইচপি দল)।

আকরাম খান বলেন, ‘(শ্রীলঙ্কা যাওয়ার আগে) আমরা (জাতীয় দল) কতদিন দেশে অনুশীলন করবো সেটা আলোচনা করেছি। কতদিন সেখানে করবো এটাও আমরা মোটামুটি একটা প্ল্যান করেছি। সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে দেশে হয়তো ১০-১২ দিন অনুশীলন করে শ্রীলঙ্কায় চলে যাবো এইচপি টিমকে নিয়ে। সেখানে আমরা ২০-২৫ দিন একসাথে অনুশীলন করবো। তারপরে তো অক্টোবরের ২৪ তারিখ থেকে আমাদের খেলা আছে (সিরিজ শুরু)।’

শ্রীলঙ্কা সিরিজটি করোনাভাইরাসকালে বাংলাদেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হতে যাচ্ছে। ফলে স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রস্তুতিতে এতটুকুও ফাঁক রাখছে না বিসিবি। আকরাম খান বললেন, ‘(বৈঠকে) আমাদের সঙ্গে দেবাশীষ দা (বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী) ছিলেন। আমরা যেন নিরাপদ থাকতে পারি এবং করনা থেকে নিরাপদ থাকাটা আমাদের কাছে অগ্রাধিকার পাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

আপাতত হোটেলের কথা চিন্তা করেছি। আমরা দুই তিনবার টেস্ট করাবো। এটা নিয়ে আমাদের আরও প্ল্যান আছে। ওখানে (শ্রীলঙ্কা) যাওয়ার আগে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আসা একতা সার্টিফিকেট নিয়ে যেতে হবে। এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর সেখানে গেলে তারাও টেস্ট নিবে। কতদিন থাকতে হবে সেটা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।’

কোচ ও স্টাফদের যোগ দেওয়ার বিষয়েও বলেছেন আকরাম খান। তিনি বলেন, ‘আপাতত পরিস্থিতি এমন থাকলে আমরা সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে অনুশীলন শুরু করবো। কোচ, টিম স্টাফদের আসার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। ইন শা আল্লাহ সেপ্টেম্বরের শুরুতে আমরা ওদেরকে দেশে আনার চেষ্টা করবো।’

গত ৮ আগস্ট বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন আকরাম খান। পূর্ব সূচি অনুযায়ী এবারের শ্রীলঙ্কা সফরে তিনটি টেস্ট খেলার কথা বাংলাদেশের। তবে আকরাম খান জানিয়েছিলেন, টেস্ট সিরিজের সঙ্গে তিন ম্যাচের একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার লক্ষে লঙ্কান বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বিসিবি।

উল্লেখ্য, জুলাই-আগস্টে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল এই তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি। কিন্তু মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে সেই মার্চে ক্রিকেট বন্ধ হয়েছে। ভাইরাসটিতে এখনো ভীত পুরো পৃথিবী, তবে ক্রিকেট আয়োজন হচ্ছে অনেক জায়গাতেই। সেই সূত্র ধরেই আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার স্থগিত হয়ে থাকা সিরিজটি।