শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

আশংকামুক্ত এমপি কেয়া চৌধুরী

1021564-_kalerkantho_picহবিগঞ্জ-সিলেট আসনের সংরক্ষিত এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর জ্ঞান আছে এবং তিনি এখন অনেকটাই সুস্থ।

এমনটাই জানালেন ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ.কে. মাহবুবুল হক।

তিনি বলেন, কেয়া চৌধুরী আশংকামুক্ত। এখন অনেকটা সুস্থ আছেন। সারাদিন ব্যস্ত থাকায় শরীর দুর্বল হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলেন। এখন তার জ্ঞান আছে।

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় (১০ নভেম্বর) হবিগঞ্জের বাহুবলে নারী সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর ওপর হামলা চালিয়েছে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক তারা মিয়া ও তার লোকজন।

তবে পুলিশের ভাষ্যমতে অনুষ্ঠান সম্পন্ন করে অসুস্থ হয়ে পড়েন নারী সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী। শুক্রবার সন্ধ্যায় মিরপুরে বেদে সম্প্রদায়ের মধ্যে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তারা মিয়ার নেতৃত্বে তার লোকজন এমপি কেয়া চৌধুরীর ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমান বলেন, হবিগঞ্জের মিরপুরে বেদেপল্লীতে সংসদ সদস্যের বেদে সম্প্রদায়ের মধ্যে চেক বিতরণে অনুষ্ঠান ছিল। সেখানে মোবাইলে ভিডিও ধারণ করাকে কেন্দ্র করে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ও উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তারা মিয়ার লোকজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে উভয় গ্রুপের লোকজনের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে তিনি অনুষ্ঠান সম্পন্ন করে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে সিলেট ওসমানি মেডিক্যালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়।

এদিকে আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকারী ইমন চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, এই হামলার পরে পুলিশসহ স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসা জন্য তাকে সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। এখন এমপি কেয়া চৌধুরীকে ওসমানীর আইসিউতে রাখা হয়েছে।

সংবাদ শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

BengalTimesNews.com