শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

“প্রতিবাদে প্রতিরোধে আমরা” পরিচয়ে ধর্ষণ এর প্রতিবাদে ৭ দিন ব্যাপী কর্মসূচি সমাপ্ত


PIC

“প্রতিবাদে প্রতিরোধে আমরা”- এর উদ্যোগে “কন্যা জায়া জননী চায় ধর্ষক মুক্ত ধরণী”-প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গত ৯ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া ৭দিন ব্যাপী প্রতিবাদ কার্যক্রম এর আজ ছিল সপ্তম ও শেষ দিন।

PIC--2

আয়োজক বাপ্পী কুমার মজুমদার, বর্ণা ব্যানার্জি, ফারহীন জাহান নুবা, ইমদাদুল হক মিলন, আনোয়ারুল ইসলাম রিয়াজ, রিমা দাস সহ অন্যান্যরা জানান এটি কর্মসূচির শেষ দিন হলেও প্রতিবাদের শেষ দিন নয়। তারা বলেছেন, যদি ধর্ষকের একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ড না করা হয় তবে তারা প্রয়োজনে আবার আন্দোলনে নামবেন এবং নানা কর্মসূচি ঘোষিত হবে। প্রয়োজনে তাদের প্রতিবাদের বজ্রকন্ঠে আবারও গর্জে ওঠবে রাজপথ। ৭দিন ব্যাপী এই টানা কার্যক্রমের শেষ দিনে প্রথমেই ছিল স্লোগান মিছিল, যেটি সিলেট নগরীর কবি নজরুল অডিটোরিয়াম প্রাঙ্গণের মুক্ত মঞ্চ থেকে শুরু হয়ে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এসে থামে এবং অবস্থান স্লোগান দিয়ে শেষ হয়। পরবর্তিতে অনুষ্ঠিত হয় শতভিষা ও থিয়েটার সিলেট এর পরিবেশনায় দুটি ধর্ষণ বিরোধী ও সচেতনতামূলক নাটক। তাছাড়াও “ধর্ষণ ও বাংলাদেশে-এর বর্তমান পরিস্থিতি” একটি প্রতিবেদন এর মাধম্যে তুলে ধরা হয়। কবিতার ভাষায় উঠে আসে ধর্ষণের ফলে নারীর তীব্র কষ্টের কথা। সন্ধ্যা হলে আলোক প্রজ্জ্বলন এর মধ্য দিয়ে শেষ হয় “প্রতিবাদে প্রতিরোধে আমরা” পরিচয়ে ধর্ষণ এর প্রতিবাদে ঘোষিত সাত দিন ব্যাপী টানা কর্মসূচির।

সংবাদ শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

BengalTimesNews.com