বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এ মাসেই সিলেট জেলা ও মহানগর আ. লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি



স্টাফ রিপোর্ট:: গত ৫ ডিসেম্বর সম্মেলনের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছিলো সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের আংশিক কমিটি। দুই কমিটির কেবল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়েছিলো সেদিন। তিন মাসের মধ্যে তাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কথা বলা হয়েছিলো। তবে নয় মাস পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পূণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি। তবে এ মাসেই হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

জানা যায়, কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার জন্য নয় মাসে একবারও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের নিয়ে বৈঠক করতে পারেননি দুই কমিটির সভাপতি- সাধারণ সম্পাদকরা।

এ অবস্থায় ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জেলা ও মহানগরের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় সভাপতির বক্তব্যে সিলেটসহ যে সব জেলা, মহানগর ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন হয়েছে কিন্তু পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি তাদের ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেওয়ার নির্দেশনা দেন তিনি।

জানা যায়, গত ৫ ডিসেম্বর নগরের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অধ্যাপক জাকির হোসেনের নাম ঘোষণা করা হয়।

এছাড়া সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হন এডভোকেট লুৎফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক হন নাসির উদ্দিন খাঁন।

ওই সম্মেলনে জেলার সভাপতি প্রার্থী ছিলেন ৭ জন, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন ৯ জন। অপরদিকে মহানগরে সভাপতি প্রার্থী ছিলেন ৪ জন, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন ১২ জন।

ওই সম্মেলনে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে বাদ পড়েন সিলেটে দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেওয়া সদ্য প্রয়াত বদরউদ্দিন আহমদ কামরান। এছাড়া জেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও মহানগরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদও শীর্ষ পদ থেকে বাদ পড়েন।

নতুন কমিটি দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই নির্ধারিত সময়ে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার আশ্বাস দেন। তবে নয় মাসেও কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে পারেননি তারা। এজন্য অবশ্য বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষূিকী উদযাপনের ব্যস্থতা ও করোনাকালীন সঙ্কটের কথা বলেছন তারা। তবে দলীয় সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশনা অনুসারে ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে বলেও জানিয়েছেন সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

এ প্রসঙ্গে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন বুধবার বলেন, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশনার চিঠি এখনও আমরা পাইনি। তবে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি।

তিনি বলেন, আমরা দায়িত্ব গ্রহণের পরই বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী আয়োজনে ব্যস্ত হয়ে পড়ি। এরপরই শুরু হয় করোনার সংক্রমণ। একারণে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা নিয়ে এখনও বকসতে পারিনি। তবে এজন্য আলাদা বৈঠকের প্রয়োজনও নেই। কারণ আমরা সকলকেই চিনি।

নতুন পরনো মিলিয়েই পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান জাকির হোসেন।

নয় মাসে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে না পারার জন্য জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানও করোনা সঙ্কটকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার জন্য আমরা প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু করোনার কারণে এতোদিন বসতে পারিনি। একই কারণে কেন্দ্রীয় নেতাদেরও সাক্ষাত পাওয়া যাচ্ছিলো না।

তিনি বলেন, ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশনা আসলে আমরা তা পালনে প্রস্তুত আছি। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পুরনো কমিটির ৮০/৯০ শতাংশ নেতাই থাকবেন। ফলে কমিটি পূর্ণঙ্গ করতে আমাদের কোনো সমস্যা হবে না।